1. kamruzzaman78@yahoo.com : kamruzzaman Khan : kamruzzaman Khan
  2. ssexpressit@gmail.com : savarsangbad :
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন

সাভারে আ.লীগের বিশাল জনসভা

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২২

সংবাদ রিপোর্ট: রাজধানীর অন্যতম প্রবেশপথ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে সাভারে জনসভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ। ১০ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে সাভারের রেডিও কলোনি স্কুল মাঠে সাভার থানা, আশুলিয়া থানা ও ধামরাই থানা আওয়ামী লীগসহ দলের ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের শীর্ষ নেতারা ছাড়াও সব পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা অংশ নেবেন। ৯ ডিসেম্বর শুক্রবার দুপুরে রেডিও কলোনি জনসভা স্থালে গিয়ে দেখা গেছে, ইতিমধ্যে স্টেজের কাজ শেষ। প্রায় ৫ লাখ মানুষকে জায়গা দেওয়ার মত আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া কেন্দ্রীয় বিভিন্ন নেতাদের ছবি ও পোষ্টার দেওয়া হয়েছে। প্রস্ততির শেষ সময়ে জনসভা স্থল পরিদর্শন করছেন স্থানীয় নেতারা। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, জনসভা সফল করার জন্য ইতিমধ্যে কয়েকটি যৌথসভা করেছে সাভার উপজেলা ও পৌরসভা, আশুলিয়া থানা এবং ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ।বৃহৎ গণজমায়েত ঘটাতে দলটির অঙ্গ সংগঠনগুলোকেও দেওয়া হয়েছে কড়া নির্দেশনা। তাই নিজেদের শক্তি ও সমর্থন দেখাতে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন নেতারা। এটি বিএনপির সঙ্গে পাল্টাপাল্টি সমাবেশ নয়। মূলত জনসমর্থন দেখাতেই এই জনসভা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জন সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ ছাড়াও জনসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক (এমপি), এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম (এমপি) ও জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি, ত্রান প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ বলেন, আমাদের জন সভার জন্য ব্যপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। শান্তিপূর্ণ এই জনসভা মহাসমাবেশ রুপ নেবে বলে আশা করি৷ ঢাকা জেলার সব কয়টি ইউনিটকে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে৷ আগামীকালকের এই সমাবেশে প্রমানিত হয়ে বাংলাদেশের জনগণ আমাদের পাশে আছে।ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্য বেনজীর আহমেদ বলেন, সাভারে বিজয়ের মাসে আমরা জনসভার আয়োজন করেছি। আমরা আশা করি জনসভায় ৫ লক্ষ লোকের সমাগম হবে। কারণ এই জনসমাবেশ হচ্ছে বিজয়ের মাসের এবং একটি বিজয়ীদের জন্য জন সমাবেশ। স্বাধীনতার মাসে একটি রাজাকাররা (বিএনপি) কেন জনসমাবেশ করবে। এই স্বাধীনতার মাসে তাদের কোন প্রোগ্রাম করার অধিকার নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ :