1. kamruzzaman78@yahoo.com : kamruzzaman Khan : kamruzzaman Khan
  2. ssexpressit@gmail.com : savarsangbad :
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

সাভারে ২২৪টি ও ধামরাইয়ে ২০৪টি পূজামণ্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সংবাদ রিপোর্ট: সারা বছরের অপেক্ষা, শরৎ এলেই সাজ সাজ রব। অবশেষে দুয়ারে পা ফেলবেন দেবী দুর্গা। মাঝে মাত্র আর কয়েকটা দিন। ঢাকেও কাঠি পড়ল বলে। সপ্তাহ শেষেই আগামী ১ অক্টোবর শনিবার ষষ্ঠীর বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হচ্ছে বাঙালি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। স্বাভাবিকভাবেই এখন পূজার তোড়জোড় চরমে। সব জায়গায় প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ পর্যায়ে। এখন চলছে রংতুলির আঁচড়ে দেবীকে মূর্ত করে তোলার কাজ। আর এ কারণে মণ্ডপে মণ্ডপে প্রতিমা শিল্পীদের এখন খাওয়ারই যেন ফুরসত নেই। সনাতন ধর্ম মতে, দেবী দুর্গা অসুর দমনের শুভ শক্তি নিয়ে পৃথিবীতে আগমন করবেন। দুষ্টের দমন আর সৃষ্টের পালনের জন্যই দশ হস্তে দেবী দুর্গা স্বর্গ থেকে মর্ত্যলোকে আগমন করেছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষগুলো প্রতি বছর শারদীয় উৎসব হিসেবে দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছে। তাই পরিবার পরিজনের জন্য এখন কেনা কাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। ঘরে বাইরে পূজাকে ঘিরে চলছে ব্যস্ততা। জামা কাপড় তৈরি, কেনা-কাটায় সরগরম শহরের বিপণী বিতানগুলোতে। শারদীয় দুর্গা উৎসবকে কেন্দ্র করে চারপাশে চলছে এখন উৎসবের আমেজ। এবার ঢাকার সাভারে ২২৪টি ও ধামরাইয়ে ২০৪টি পূজামণ্ডপে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয় দুর্গোৎসব। গত দুই বছর করোনার কারণে বিধিনিষেধের মধ্য দিয়ে সীমিত পরিসরে উৎসবটি পালন করা হয়। তাই এবারের আয়োজন হচ্ছে বেশ ঘটা করে। এক মাস ধরে মণ্ডপগুলোতে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ। অধিকাংশ মণ্ডপে প্রতিমা নির্মাণের কাজ শেষ। প্রতিমা শিল্পীদের রঙতুলির কাজ বাকি। শ্রদ্ধা আর ভালোবাসার সঙ্গে রাত-দিন সমান তালে কাজ করছেন তারা। মনের মাধুরী মিশিয়ে নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তুলছেন দুর্গা দেবীর আকৃতি। পাশাপাশি চলছে লক্ষ্মী, সরস্বতী, গণেশ ও কার্তিকের প্রতিমা তৈরির কাজ। তবে এবার পূজার সংখ্যা বেড়েছে, কিন্তু বাজেট তেমন বাড়েনি বলে জানালেন প্রতিমা শিল্পীরা।

সাভারের বিভিন্ন মন্দিরে প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন রিপন পাল ও তার সহযোগীরা। শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততায় দম ফেলবার ফুরসত নেই তাদের। রিপন পাল বলেন, ‘এ বছর ১৩টি প্রতিমার কাজ শুরু করেছি। সামনে বেশি সময় না থাকায় দিনরাত কাজ করতে হচ্ছে।’ তিনি আরও জানান এ বছর প্রতিটি প্রতিমা তৈরির খরচ ৮০-৯০ হাজার টাকা নিলেও আমাদের পোষাবে না। কারণ প্রয়োজনীয় উপকরণের মধ্যে রং, কাপড়, পুঁথির মালা, পরচুলা, চুমকি, শোলা ও কারিগরের মজুরিসহ সব কিছুর দাম বেড়ে গেছে।’ এদিকে এবার বিধিনিষেধ না থাকায় আনন্দের মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজা উদযাপন করা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। সাভার উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাস বলেন, ‘করোনা মহামারির পর আশা করছি এবার অত্যন্ত সুন্দর ও আনন্দের মধ্য দিয়ে সবাই মিলে উৎসবটি পালন করতে পারব।’ তবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের ক্ষেত্রে এ বছর সরকারের বিধিনিষেধের কারণে আলোকসজ্জায় কিছুটা ঘাটতি থাকবে বলে মনে করছেন পূজা সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু এতে আনন্দে কোনো ঘাটতি পরবেনা বলে জানালেন ধামরাই উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নন্দ গোপাল সেন। তিনি বলেন, উৎসবের সব আয়োজন শেষের দিকে। তবে বিদ্যুৎ ব্যবহারে কিছু বিধিনিষেধ থাকায় আলোকসজ্জায় সামান্য ঘাটতি হলেও উৎসবের আনন্দে ঘাটতি হবে না। এদিকে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবছর যে অনুদান বা উপহার দেওয়া হয়, তা বিতরন কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তালিকা অনুযায়ী মণ্ডপ বা মন্দির কর্তৃপক্ষকে উপহার দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসন। পাশাপাশি সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে দুর্গাপূজার কার্যক্রম সম্পন্ন করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীও। এ ব্যপারে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর জানান, ইতোমধ্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমার ইউনিয়নের ৪৭টি পুজা মন্ডপের প্রতিনিধিদের হাতে প্রধানমন্ত্রীর শারদীয় শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাকি ইউনিয়ন গুলোতেও তা চলমান রয়েছে। ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহিল কাফী বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যে পূজা উদযাপন সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে আলোচনা করেছি। পূজার সময় গুরুত্বপূর্ণ স্থানসহ বিভিন্ন এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে। এ ছাড়া কন্ট্রোলরুম খোলা, ২৪ ঘণ্টা সাইবার মনিটরিং, টহল পুলিশ দায়িত্ব পালনসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’

সংবাদটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ :