1. kamruzzaman78@yahoo.com : kamruzzaman Khan : kamruzzaman Khan
  2. ssexpressit@gmail.com : savarsangbad :
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

সাভারে ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে কেনা দামে নিত্যপণ্য বিক্রি

  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৫ মার্চ, ২০২৩

সংবাদ রিপোর্ট: সাভারে রমজান মাস উপলক্ষে এক ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে সব ধরনের নিত্যপণ্য মুনাফা ছাড়াই বিক্রি শুরু হয়েছে। রমজানের প্রথম দিনই প্রায় শতাধিক পরিবার এসব পণ্য ক্রয় করেছেন। সাভারের ভাকুর্তা ইউনিয়ন পরিষদের পাশে বিএস সুপার মার্কেটে প্রায় ৪৫ ধরনের নিত্য পণ্যের পসরা সাজিয়েছেন ভাকুর্তা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন। যেখান থেকে রমজান জুড়ে সুবিধা ভোগ করবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমান। পবিত্র রমজান মাস জুড়ে চাল, বিভিন্ন প্রকার ডাল, সুগন্ধি চাল, সব ধরনের মসলা, সয়াবিন তেল, সরিষার তেল, শুকনো মরিচ, লবন, বেসনসহ প্রায় ৪৫ প্রকার নিত্য পণ্য এখান থেকে ক্রয় করতে পারবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমান। আর এই পণ্য বিক্রিতে দুই জন বিক্রয় প্রতিনিধি সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নিয়োজিত থাকবেন। নিত্য পণ্য ক্রয় করতে আসা শাহীন বলেন, আসলে নিত্য পণ্যের দাম চড়া হওয়ায় আমাদের মতো গরীব মানুষরা খুব কষ্টে আছে। এই সময়ে এ ধরনের একটি উদ্যোগ সত্যিই আমাদের অনেক উপকৃত করেছে। আমরা এক সঙ্গে প্রায় ৬ জন এখান থেকে চাল, ডাল, চিনি ও মসলা ক্রয় করেছি। অন্য দোকানের চেয়ে এখানে দাম অনেক কম। রমজান উপলক্ষে এধরনের দোকানের পাশাপাশি গরীব মানুষের জন্য বছর জুড়ে এধরনের উদ্যোগ নিলে গরীব মানুষরা এর সুফল ভোগ করতে পারবে। অপর ক্রেতা হালিম উদ্দিন বলেন, আমি সয়াবিন তেল কিনতে এসেছি। ৫ লিটার সয়াবিন তেল কিনলাম মুদি দোকানের চেয়ে কম টাকায়। আমি একজনের কাছে শুনে এখানে তেল কিনতে করতে এসেছি। বিকেলে চাউল কিনতে আসছে এ ব্যাপারে দোকানের বিক্রয় প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলাম বলেন, আমাদের ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এই উদ্যোগ নিয়েছেন। আমাদের বেতনে এখানে রেখেছেন। আমরা সব ধরনের নিত্যপণ্য এখানে পাইকারি বিক্রি করছি। প্রথম রমজানে শতাধিক ক্রেতা প্রায় ৪০ হাজার টাকার পণ্য ক্রয় করেছে। আজও বেশ কিছু ক্রেতা পণ্য কিনেছে। বিকেলে ক্রেতার ভিড় বাড়বে বলে মনে করছি। আশা করছি আজ লাখ টাকার পণ্য বিক্রি হবে। সব পণ্য মুনাফা ছাড়া বিক্রি করায় এখানে ক্রোতারা ভিড় জমাচ্ছেন। ভাকুর্তা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বলেন, আমি মুলত মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত ও গরীব মানুষের কথা চিন্তা করে এই উদ্যোগ নিয়েছি। মধ্যবিত্তরা আসলে অনেক কষ্টে থাকলেও কোথাও গিয়ে বলতে পারে না। কোনো অনুদান কিংবা ভর্তুকি মূল্যে তারা পণ্য কিনতে গিয়ে লজ্জা পান। তাই সকলের কথা চিন্তা করে এই উদ্যোগ নিয়েছি। এখান থেকে মধ্যবিত্তরাও পণ্য সানন্দে কিনছেন। একই সঙ্গে সব ভোক্তারা এখানে আনন্দের সঙ্গে নিত্যপণের চাহিদা মেটাতে পারবেন বলে আমার বিশ্বাস। সব পণ্য আমরা কেনা দামেই বিক্রি করছি। এটা শুধু রমজান মাস জুড়েই চলবে। এ ব্যাপারে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম বলেন, এটা সত্যিই মহতি উদ্যোগ। তিনি যেহেতু জনপ্রতিনিধি, তার কাছে এ ধরনের উদ্যোগ আমরা আশা করি। এসময় সকল জনপ্রতিনিধিকে জনগণের কল্যাণে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ :